* শিক্ষা * শান্তি * প্রগতি

* জয় বাংলা * জয় বঙ্গবন্ধু

শিরোনাম:

চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী পালিত বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগের দোয়া মাহফিল প্রেস বিজ্ঞপ্তি আপোষহীন মহানায়ক বঙ্গবন্ধু সাধারণ মানুষের হৃদয়ে অম্লান হয়ে থাকবে। জঙ্গিবাদের মূলোৎপাটনের দাবিতে ছাত্রলীগের মৌন মিছিল বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিল তারেক রহমান: শোভন প্রেস বিজ্ঞপ্তি জাতির পিতার রক্তের ঋণ শোধ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকে ‘ফ্রেন্ড অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ আখ্যা জাতীয় শোক দিবসে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ “সেই কালো রাত এবং বঙ্গবন্ধু” বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফেরাতে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা জোরদার করা হয়েছে: কাদের কক্সবাজারকে দুর্গন্ধমুক্ত রাখতে কোরবানি পশুর বর্জ্য পরিষ্কার করলো জেলা ছাত্রলীগ শোক দিবসে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রাণের মানুষদের সমাধিতে গোলাপের পাপড়ি ছড়ালেন শেখ হাসিনা ১৫ ই আগষ্টের খুনি ও ২১ শে আগষ্টের গ্রেনেড হামলাকারীদের শাস্তির দাবিতে যশোর ছাত্রলীগের মানববন্ধন আজ পিতা হারানোর শোকে কাঁদবে বাঙালি “সেই কালো রাত এবং বঙ্গবন্ধু” আগস্টের শোক হোক বাঙালির শক্তি আগস্টের শোক হোক বাঙালির শক্তি

বাংলাদেশের বাঁকে বাঁকে ছাত্রলীগ অবদান রেখেছে : শোভন

১৮ জুলাই, ২০১৯, ২:১০ প্রিন্ট

রাজনৈতিকভাবে বাংলাদেশ যতবার হুমকির মুখে পড়েছে তখনই বাঁকে বাঁকে ছাত্রলীগ তার অবদান রেখেছে বলে মন্তব্য করেছেন ছাত্রলীগের সভাপতি রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভন। বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারান্তরীণ দিবস উপলক্ষে ‘গণতান্ত্রিক সংগ্রামে শেখ হাসিনা শীর্ষক’ আলোকচিত্র প্রদর্শনী ও আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। শোভন বলেন, ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই আজকের এই দিনে গণতন্ত্রের মানসকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে কারা অভ্যন্তরে নিয়ে বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করতে চেয়েছিল এদেশের সেনা সমর্থিত সরকার। যেভাবে ১৯৭৫ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে হত্যার মধ্য দিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চেয়েছিল তারই পুনরাবৃত্তি করার জন্যেই আমাদের জননেত্রী শেখ হাসিনাকে সেদিন কারাবরণ করতে হয়েছিল। ছাত্রলীগের সভাপতি বলেন, ২০০৭ এর তথাকথিত সেই তত্বাবধায়ক সরকার বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করতে চেয়েছিল, দেশের উন্নয়নে বাঁধা হয়ে দাড়াতে চেয়েছিল সেই সময়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড বঙ্গবন্ধুর নিজের হাতে গড়া সংগঠন নিজের জীবন বিলিয়ে দেয়ার মত সাহস ও প্রতিজ্ঞা নিয়ে রাস্তায় নেমে এসেছিল। তারা অবদান রেখেছিলেন। তিনি বলেন, ছাত্রলীগের সেই সময়ে রিপন-রোটন ভাইয়ের নেতৃত্বে আমাদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক শেখ সোহেল রানা টিপু ও সাজ্জাদ সাকিব বাদসা ভাইয়ের নেতৃত্বে সেইসুময় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ দেশরত্ন শেখ হাসিনার মুক্তি আন্দোলনে দেশের প্রত্যেকটা ওয়ার্ড, ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা যে আন্দোলন গড়ে তুলেছিলেন আমরা বর্তমানরা তাদের কথা সারাজীবন স্মরণ করব। শোভন বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এমন একটা সংগঠন যেটা বঙ্গবন্ধু নিজের হাতে গড়ে তুলেছেন। আর তারপর থেকে দেশে যখনই আমাবস্যার অন্ধকার রাত এসেছে সেই বাঁকে বাঁকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ তার নিজের অবদান রেখেছে। তারা জীবন বিলিয়ে দিয়ে, রক্ত বিলিয়ে দিয়ে, ঘাম ব্যায় করে আওয়ামী লীগের সঙ্গে অবদান রেখেছে। বাংলাদেশ বিনির্মাণে শেখ হাসিনার যে স্বপ্ন, বঙ্গবন্ধুর যেই স্বপ্ন তার জন্যে ছাত্রলীগ ভ্যানগার্ড হিসেবে কাজ করেছে। ছাত্রলীগের এই নেতা বলেন, ২০০৭ এর ১৬ জুলাই যখন দেশরত্ন শেখ হাসিনা কারাবরণ করেছিলেন তার আগের ও পরের শেখ হাসিনা একেবারেই ভিন্ন ও শক্তিশালী। ঢাবি সিনেটের এই ছাত্র প্রতিনিধি বলেন, শেখ হাসিনা সেইসময় দেশকে নিয়ে ভেবেছেন। দেশ বিনির্মাণের চিন্তা করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় আজকে আমরা যে উন্নত বাংলাদেশ দেখছি। শেখ হাসিনা যেই নিরলস পরিশ্রম করছেন আমরা বলতে পারি তিনি কারাবরণ না করলে হয়ত এটা আসত না। তার এখনকার যেই ম্যাচুরিটি সেটা আসত না। তিনি যে স্বপ্ন দেখেছেন তিনি বলেন, আমরা ছাত্রলীগ ভবিষ্যতেও শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড হিসেবে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গঠনে নিজের শ্রম ঘাম ও জীবনকে বিলিয়ে দিতে সামনের কাতারে থাকব। ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের সভাপতিত্বে আলোকচিত্র প্রদর্শনী ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রেলমন্ত্রী অ্যাডঃ নুরুল ইসলাম সুজন, বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শেখ সোহেল রানা টিপু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বাদশা, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

পাঠকের মতামত:

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে