* শিক্ষা * শান্তি * প্রগতি

* জয় বাংলা * জয় বঙ্গবন্ধু

শিরোনাম:

চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী পালিত বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগের দোয়া মাহফিল প্রেস বিজ্ঞপ্তি আপোষহীন মহানায়ক বঙ্গবন্ধু সাধারণ মানুষের হৃদয়ে অম্লান হয়ে থাকবে। জঙ্গিবাদের মূলোৎপাটনের দাবিতে ছাত্রলীগের মৌন মিছিল বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিল তারেক রহমান: শোভন প্রেস বিজ্ঞপ্তি জাতির পিতার রক্তের ঋণ শোধ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকে ‘ফ্রেন্ড অব দ্য ওয়ার্ল্ড’ আখ্যা জাতীয় শোক দিবসে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ “সেই কালো রাত এবং বঙ্গবন্ধু” বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফেরাতে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা জোরদার করা হয়েছে: কাদের কক্সবাজারকে দুর্গন্ধমুক্ত রাখতে কোরবানি পশুর বর্জ্য পরিষ্কার করলো জেলা ছাত্রলীগ শোক দিবসে টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রাণের মানুষদের সমাধিতে গোলাপের পাপড়ি ছড়ালেন শেখ হাসিনা ১৫ ই আগষ্টের খুনি ও ২১ শে আগষ্টের গ্রেনেড হামলাকারীদের শাস্তির দাবিতে যশোর ছাত্রলীগের মানববন্ধন আজ পিতা হারানোর শোকে কাঁদবে বাঙালি “সেই কালো রাত এবং বঙ্গবন্ধু” আগস্টের শোক হোক বাঙালির শক্তি আগস্টের শোক হোক বাঙালির শক্তি

সেই খামারিকে ২০০ হাঁস কেনার টাকা দিলেন নেত্রকোনা জেলা ছাত্রলীগ নেতা

১১ জুন, ২০১৯, ২:০৫ প্রিন্ট

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার বলাইশিমুল ইউনিয়নের ছবিটা গ্রামে শত্রুতার জেরে শারীরিক প্রতিবন্ধী হাঁস খামারি আবুল কাশেমের ৮শত হাঁস বিষ প্রয়োগ করে মেরে ফেলার ঘটনা ঘটে।

এই ঘটনার খবর ছড়িয়ে পরে বিভিন্ন গণমাধ্যমে। এরই প্রেক্ষিতে সোমবার বিকেলে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আবুল কাশেমের খোঁজ খবর নেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। এ সময় তিনি আবুল কাশেমের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ছাত্রলীগ পাশে থাকবে বলে ঘোষণা দেন। আর এই ভিডিও কনফারেন্সের খবর ছড়িয়ে পরে ফেইসবুকে।

এরই প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় নেতা গোলাম রাব্বানীর ঘোষণার পর মঙ্গলবার দুপুরে দুইশ’ হাঁস কেনার জন্য ২৮ হাজার টাকা নিয়ে ছবিলা গ্রামে হাজির হন নেত্রকোনা জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সোবায়েল আহমেদ খান।

এ সময় তিনি আবুল কাশেমের হাতে নগদ ২৮ হাজার টাকা তুলে দেন। এমন দুঃসময়ে ছাত্রলীগ নেতাদের পাশে পেয়ে আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়েন আবুল কাশেম। তিনি বলেন, ‘আমার উপার্জনের একমাত্র অবলম্বন হাঁসগুলো মারা যাওয়ার ফলে আমি অনেকটা‍ নিঃস্ব হয়ে পড়েছিলাম। তবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় ও নেত্রকোনা জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আমার পাশে দাঁড়িয়েছেন। অামি গোলাম রাব্বানী ও তার নেতাকর্মীদের দীর্ঘায়ু কামনা করি।’

এ ব্যাপারে সোবায়েল আহমেদ বলেন, ‘গোলাম রব্বানী ভাইয়ের দেওয়া কথা বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে আমি নিজ তহবিল থেকে কিছু অর্থ দিয়ে আবুল কাশেমের পাশে দাঁড়াতে পেরে গর্ববোধ করছি। অাশা করছি জেলা ছাত্রলীগের অন্যান্য নেতাকর্মীরাও তার পাশে দাঁড়াবে।’

এসময় তার সঙ্গে ছিলেন কেন্দুয়া উপজেলা অাওয়ামী লীগের সভাপতি মনজুর অালী, উপজেলা অাওয়ামী লীগ নেতা শহীদুল হক ফকির বাচ্চু, সাবেক ইউনিয়ন চ্যেয়ারম্যান ফজলুমিয়া, জেলা ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক সৈয়দ অাল রাকিব,জাহিদ হাসান ঝিকু,লালন, বাদন তাকবীর,সাদ সাদেক সাইফুল ইসলাম শুভ্র, মোঃকরিম।

পাঠকের মতামত:

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে