* শিক্ষা * শান্তি * প্রগতি

* জয় বাংলা * জয় বঙ্গবন্ধু

শিরোনাম:

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের উদ্যোগে চকরিয়ায় প্রীতি ফুটবল ম্যাচ। বাজেটকে স্বাগত জানিয়ে নওগাঁয় ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল বা‌জেটকে স্বাগত জানিয়ে তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল অসহায় জামিলুরকে ব্যাটারি চালিত রিকশা দিলেন ছাত্রলীগ সম্পাদক বাজেটকে স্বাগত জানিয়ে সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল বাজেটকে স্বাগত জানিয়ে বুয়েট ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল ‘শুধু একটা স্বপ্নপূরণে মৃত্যুকে হাতে নিয়ে ফিরে এসেছি’ – শেখ হাসিনা প্রস্তাবিত বাজেটকে স্বাগত জানিয়ে গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল বাজেটকে স্বাগত জানিয়ে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটের সদস্য হলেন ছাত্রলীগের সভাপতি শোভন ও সঞ্জিত চন্দ্র দাস অার্থিক অনুদানের চেক হস্তান্তর করলেন প্রধানমন্ত্রী চকরিয়া ও মাতামুহুরি সাংগঠনিক উপজেলা ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যোগে দোয়া মাহফিল শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের দোয়া মাহফিল গাজীপুর সদর উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে ছাত্রলীগের গণসংযোগ শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের দোয়া মাহফিল শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগের দোয়া মাহফিল ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে সেই খামারিকে অার্থিক অনুদান সেই খামারিকে ২০০ হাঁস কেনার টাকা দিলেন নেত্রকোনা জেলা ছাত্রলীগ নেতা ফেলানীর পরিবারের পাশে ছাত্রলীগ সভাপতি শোভন হাঁস হারানো অসহায় আবুল কাশেমের পাশে ছাত্রলীগ

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে ছাত্রলীগ সম্পাদকের ফেসবুক স্ট্যাটাস

২৮ মার্চ, ২০১৯, ১২:২৬ প্রিন্ট

জানি বহুদিনের অভ্যাস, পরিবর্তন করতে সময় লাগবে, কষ্ট হবে। তবুও সময়ের প্রয়োজনেএই পরিবর্তনগুলো আবশ্যক, নাহলে নেতৃত্বের দৌড়ে পিছিয়ে যাবে নিশ্চিত… তোমরা যারা বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃত্ব প্রত্যাশী, তোমাদের সংশ্লিষ্ট ইউনিটে সাংগঠনিক অবস্থান, কর্মী ও সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছে জনপ্রিয়তা ও গ্রহণযোগ্যতা, এবং অন্যান্য মানবিক গুণাবলী বিবেচনায় নিয়ে পদ দেয়া হবে।

অনুসারী আমার পিছনে কে কতদিন ঘুরলা, আমার হল বা বাসার নিচে কত ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকলা, কত বড় লম্বা লাইন দিয়ে আমাকে সালাম দিলা, বাইক নিয়ে আমাকে কত মাইল প্রটোকল দিলে সেটা একদমই বিবেচ্য হবে না! বরং, এটা আমি সত্যি অপছন্দ করি, খুব বিরক্ত হই… একদিন আমি তোমার জায়গায় ছিলাম, আজ সময়ের ব্যবধানে আমি এখানে, কাল তোমাদের মধ্যেই কেউ আমার স্থানে আসবে। সুতরাং ‘তোমার’ আর ‘আমার’ মাঝে পার্থক্য সামান্যই, সংগঠনের বড় ভাই হিসেবে প্রাপ্য সম্মানটুকু দিলেই চলবে, দৃষ্টিকটু ভাবে লাইন দিয়ে সালাম দেয়া, পিছন পিছন দৌড়ঝাঁপ করা মোটেও কাম্য নয়।

তোমরা যারা নেতা হতে চাও, পর্যাপ্ত পরিমানে আত্মমর্যাদাবোধ ও ব্যাক্তিত্ববোধ তোমাদের থাকা উচিত বলে আমি মনে করি, অন্তত আমার অনুসারীদের মাঝে আমি সেই ব্যক্তিত্বের প্রতিফলন দেখতে চাই। ফের বলছি, আমার মন জয় করতে হলে ইতিবাচক কাজ, সাংগঠনিক অবস্থান ও তোমার গ্রহণযোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে করতে হবে, আমি না চিনলেও সমস্যা নাই… এমন কাজ করো যেন তোমার নামটা এমনিতেই কানে এসে বাজে। আকাশে চাঁদ উঠলে সবাই দেখে… বৃক্ষ তোমার নাম কি, ফলে পরিচয়!

আমি মিন ইট!!

পাঠকের মতামত:

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে