* শিক্ষা * শান্তি * প্রগতি

* জয় বাংলা * জয় বঙ্গবন্ধু

শিরোনাম:

প্রতিবন্ধীদের বাদ দিয়ে উন্নয়ন কল্পনা করা যায় না: ছাত্রলীগ সভাপতি বিদ্যুৎ উৎপাদনে রেকর্ড ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে বিআরটিসির এসি বাস সার্ভিস চালু কৃষকদের সঙ্গে ধান কাটলেন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক কৃষকদের পাশে দাঁড়ালো বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শান্তি ছাড়া উন্নতি সম্ভব নয়: প্রধানমন্ত্রী অনিয়মিত অভিবাসনকে আমরা কখনও উৎসাহ দেই না: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কৃষির যান্ত্রিকীকরণে ৩ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করা হবে : কৃষিমন্ত্রী বিশ্বব্যাপী কোরআন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের সংবর্ধনা জানাবে ছাত্রলীগ: গোলাম রাব্বানী ঈদে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় চলবে ২০টি ফেরি ও ২২টি লঞ্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে দেশে-বিদেশে সভা-সেমিনার, কর্মশালার সিদ্ধান্ত ২ লাখ ২৭২১ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন মধুর ক্যান্টিনে সংগঠিত অনাকাঙ্খিত এবং অপ্রীতিকর ঘটনা তদন্তের নিমিত্তে প্রেস বিজ্ঞপ্তি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের অন্তর্গত সকল ইউনিটের উদ্দেশ্যে প্রেস বিজ্ঞপ্তি বগুড়া-৬ আসনে আ. লীগের প্রার্থী জামান নিকিতা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সেবা নিচ্ছে দুটি ব্যাংক বাংলাদেশে সবাই সম্মানের সঙ্গে নিজ ধর্ম পালন করবে: প্রধানমন্ত্রী অতীতের চেয়ে স্বস্তিদায়ক হবে এবারের ঈদ যাত্রা মন্ত্রিপরিষদে পুনর্বিন্যাস করে প্রজ্ঞাপন জারি সবাই মিলে দেশটাকে সুন্দর করে গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

৩০০ আসনে প্রচারে নামছে ‘ছাত্রলীগের ৩০০ টিম’

৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:১৫ প্রিন্ট

 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ব্যাপক কর্মযজ্ঞ হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। সারাদেশের ৩০০ সংসদীয় আসনের প্রচারে যাবে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় ৩০০ টিম। এ ছাড়া ১০ কোটি ৪২ লাখ ভোটারের বিপরীতে ৪০ হাজার ভোটকেন্দ্রে থাকবে ছাত্রলীগের কেন্দ্রভিত্তিক কমিটি।  

পাশাপাশি নির্বাচন উপলক্ষে নেতাকর্মীদের কাছে দ্রুততম সময়ে নির্দেশনা পাঠাতে ৪ লাখ নেতাকর্মীকে নিয়ে বিভিন্ন গ্রুপে ভাগ করে ‘হোয়াটসআ্যাপ গ্রুপ’ তৈরি করা হয়েছে। সম্প্রতি ছাত্রলীগের এক বর্ধিত সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানা গেছে।

ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, আগামী সংসদ নির্বাচনে নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেওয়ার জন্য গত মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে এক বিশেষ বর্ধিত সভা ডাকে ছাত্রলীগ। সভায় ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শীর্ষনেতারা ছাড়াও সারাদেশের সব সাংগঠনিক জেলার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত ছিলেন। দিনব্যাপী এ সভায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারাও উপস্থিত ছিলেন।

আগামী নির্বাচন উপলক্ষে সভায় একগুচ্ছ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী।

সিদ্ধান্তের বিষয়ে জানতে চাইলে রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন গতকাল বলেন, প্রতীক বরাদ্দের পরপরই ছাত্রলীগের ৩০০ প্রতিনিধি দল ৩০০টি সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারে যাবে।

এ ছাড়া প্রতিটি জেলার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে নিজ নিজ জেলার কেন্দ্রভিত্তিক কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ৪০টি জেলায় কমিটি গঠিত হয়েছে। এসব কমিটির কার্যক্রম সমন্বয় করবেন সাংগঠনিক ৮ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত ১৬ নেতা। এ ছাড়া সারাদেশের ৪ লাখ নেতাকর্মীকে নিয়ে  হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপগুলো তৈরি করা হয়েছে, যেন নির্বাচনের সময় এসএমএসের মাধ্যমে সারাদেশে প্রয়োজনীয় বার্তা পৌঁছানো যায়।

জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ, বদরুন্নেসা কলেজ, গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজ, ইডেন কলেজসহ ঢাকার প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ থেকে প্রতিনিধি নিয়ে ৩০০ সংসদীয় আসনে ৩০০টি পৃথক টিম গঠন করা হবে।

প্রত্যেককে তাদের নিজ নিজ জেলায় পাঠানো হবে নৌকার পক্ষে কাজ করার জন্য। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ এলাকায় সুনাম আছে, ভোটের মাঠে এটাকে কাজে লাগাবে ছাত্রলীগ।

ইতোমধ্যে নির্বাচনকালীন সময়ের জন্য ‘বিভাগীয় নির্বাচনী ও সমন্বয় কমিটি’ গঠন করেছে ছাত্রলীগ। গত সোমবার রাতে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের জরুরি এক সিদ্ধান্তে ওই কমিটি গঠন করা হয়। এতে আট বিভাগের ১৬ জনকে রাখা হয়েছে।

এ ছাড়া ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দুজন ৮ বিভাগের মধ্যে থেকে ৪টি করে বিভাগ নিজেরা ভাগ করে নেবেন। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দুজনেই বিভাগীয় পর্যায়ে নির্বাচনী প্রচারে নামবেন।

সারাদেশের পাশাপাশি রাজধানী ঢাকার জন্য বিশেষ পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে ছাত্রলীগ। ঢাকার প্রবেশদ্বার বলে খ্যাত নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, মানিকগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জ জেলার বিভিন্ন পয়েন্টে নির্বাচনের দিন ও নির্বাচনের আগে-পরে সতর্ক অবস্থানে থাকবে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ বিষয়ে নির্দেশনা দিতে আজ সংশ্লিষ্ট চার জেলা, ঢাকা জেলা এবং ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে বসতে পারেন ছাত্রলীগের দুই শীর্ষনেতা। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শনিবার ঢাকার আশপাশের নেতাদের সঙ্গে বসার কথা ছিল ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের।

নির্বাচনের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোয়ও থাকবেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ইতোমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৭টি আবাসিক হলে শিক্ষার্থী সংলাপ নামের একটি মতবিনিময় সভা শুরু করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন। নির্বাচনের সময় ঢাকার আসনগুলোয় কাজ করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পাশাপাশি যারা নিজ নিজ এলাকায় প্রচারে নামতে চান, তাদের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সংযুক্ত করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের ঢাবি সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস।

পাঠকের মতামত:

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে